হ্যাক হচ্ছে আইফোন ১০ এর ফেইস আইডি আনলক সিস্টেম

iPhone X Face ID Hacking
আইফোন ১০ বাজারে এসেছে এখনো দুই সপ্তাহ পার হয়নি। এরইমধ্যে ভিয়েতনামের একটি গবেষণা প্রতিষ্ঠান দাবি করেছে যে তারা হ্যাক করতে পারেছে আইফোন ১০।
ভিয়েতনামের একটি সাইবার নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠান বিক্যাভ শুক্রবার এই ঘোষণা দিয়েছে। প্রতিষ্ঠানটি বলছে, একটি ত্রিমাত্রিক প্রিন্টার, সিলিকন এবং পেপার টেপ দিয়ে ফেস রিকগনিশন প্রযুক্তিকে ধোঁকা দিয়েছেন তারা। শুধু ঘোষণা দিয়েই ক্ষান্ত হয়নি তারা, হ্যাকিংয়ের একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে। ওই ভিডিওতে দেখা গেছে, মুখোশ ব্যবহার করেই তারা আইফোন ১০ আনলক করছেন।
বিক্যাভের ভাইস প্রেসিডেন্ট এনগো তুয়ান আনহ একবার নিজের চেহারা ব্যবহার করে আরেকবার মুখোশ ব্যবহার করে আইফোন ১০ আনলক করেন। উভয় পদ্ধতিতেই তিনি সফল হয়েছেন।
তবে মুখোশ ব্যবহার করে আইফোন ১০-কে হ্যাক করতে হলে একটি নির্দিষ্ট অ্যাঙ্গেলে রাখতে হবে দুটি জিনিসকেই।
এদিকে অ্যাপল সাংবাদিকদের কাছে এ বিষয়ে মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে। উল্টো সাংবাদিকদের অ্যাপলের ওয়েবসাইট থেকে ফেস রিকগনিশন প্রযুক্তির বিষয়ে জেনে নিতে বলা হয়েছে।
ওই ওয়েবপেজে বলা হচ্ছে, প্রতি দশ লাখের একটিতে এ ধরনের সমস্যা দেখা দিতে পারে। যেটি আগে ব্যবহৃত আঙ্গুলের ছাপ প্রযুক্তির ক্ষেত্রে ছিল প্রতি পঞ্চাশ হাজারে একটি। এছাড়া ফেস রিকগনিশন যদি পাঁচবার ব্যর্থ হয় তাহলে পাসওয়ার্ড ব্যবহার করতে হবে।
আনহ স্বীকার করেছেন যে ওই মুখোশটি বানানো সহজ ছিল না। তবে তিনি বলেন, তার বিশ্বাস এটি নিশ্চয় ফেস রিকগনিশন প্রযুক্তির গ্রহণযোগ্যতা প্রশ্নের মুখে ফেলবে।
তিনি আরো বলেন, সাধারণ মানুষের জন্য এটা সহজ বিষয় নয়। কিন্তু নিরাপত্তা খাত এবং গুরুত্বপূর্ণ লোক যেমন রাজনীতিক বা কোনো ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের প্রধানদের জন্য এটি মাথাব্যথার কারণ হতে পারে।
তিনি বলেন, এসব গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি যদি ফেস রিকগনিশন প্রযুক্তির ব্যবহার করে তাহলে তাদের ফোন কখনই হাত ছাড়া করা ঠিক হবে না।
যদিও ফেস রিকগনিশন প্রযুক্তি ব্যবহার করে আইফোন ১০ হ্যাক করার এই বিষয়টি বিক্যাভ ছাড়া এখন পর্যন্ত আর কেউ দাবি করেনি।
নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞরা বলছেন, কোনো কিছুই শতভাগ নিরাপদ নয়। তবে বিষয় হচ্ছে কোনো একটা প্রযুক্তিকে হ্যাক করতে কতটা সময় লাগছে সেটাই দেখার বিষয়।
আইফোন ১০ হ্যাকিংয়ে সফলতা পেতে বিক্যাভের এক সপ্তাহ লেগেছে। এর আগেও বিক্যাভ এ ধরনের ফেস রিকগনিশন প্রযুক্তির হ্যাক করেছিল। তখন অবশ্য ল্যাপটপের হ্যাক করেছিল প্রতিষ্ঠানটি।
অ্যাপলের সর্বশেষ পণ্য হচ্ছে এই আইফোন ১০। গেলো ৩ নভেম্বর বাজারে আসে পণ্যটি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*