পরমাণু ঘাঁটি ধ্বংস করতে উত্তর কোরিয়ায় ঢুকবে মার্কিন সেনা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: উত্তর কোরিয়ার পরমাণু অস্ত্রাগার নিয়ন্ত্রণ বা ধ্বংস করতে দেশটির অভ্যন্তরে প্রবেশ করবে মার্কিন সেনাবাহিনী- এমনটাই ইঙ্গিত যুক্তরাষ্ট্রের। পেন্টাগণের পক্ষ থেকে এক চিঠিতে এই ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

উত্তর কোরিয়ার অস্ত্রাগারগুলোকে চিহ্নিত করার কথাও বলা হয়েছে ওই চিঠিতে।

American army in north koreaআর এতে করে যুদ্ধের আশঙ্কা এই মুহূর্তে কতটা? এমনই প্রশ্ন রাখা হয়েছিল মার্কিন প্রতিরক্ষা বিভাগের কাছে। উত্তরে পেন্টাগণের জয়েন্ট স্টাফ’র ভাইস ডিরেক্টর চিঠি লিখেছেন। সেই চিঠিতেই জানানো হয়েছে, উত্তর কোরিয়ার পরমাণু অস্ত্রাগারগুলো চিহ্নিত করে সব পরমাণু অস্ত্র যদি নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নিতে চায় যুক্তরাষ্ট্র, তাহলে উত্তর কোরিয়ার ভূখণ্ডে সেনাবাহিনীকে পাঠানো ছাড়া অন্য কোন উপায় নেই। তবে এমন পদক্ষেপে বড়সড় ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা থাকছে বলেও পেন্টাগণ মনে করছে।

মার্কিন বাহিনী উত্তর কোরিয়ার ভূখণ্ডে পা রাখলেই কিম জং উন জীবাণু অস্ত্র এবং রাসায়নিক অস্ত্র প্রয়োগ করতে পারে বলে পেন্টাগণের আশঙ্কা। বিমান হামলা বা মিসাইল ছোঁড়ার কথা ভাবা গেলেও, উত্তর কোরিয়ার ভূখণ্ডে সেনাবাহিনী ঢোকানোর ভাবনা খুব একটা সুবিধাজনক পথ নয়, এমনই ইঙ্গিত রয়েছে পেন্টাগণের চিঠিতে।

সম্প্রতি উত্তর কোরিয়ার একের পর এক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা এবং পরমাণু বিস্ফোরণের প্রেক্ষিতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সুর পিয়ংইয়ং-এর বিরুদ্ধে অত্যন্ত চড়া। উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে সামরিক অভিযান যে হতেই পারে, সে ইঙ্গিত একাধিক বার দিয়েছেন ট্রাম্প।

উত্তর কোরিয়ার শাসক কিম জং উনও একাধিক বার মার্কিন ভূখণ্ডে আঘাত হানার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here