তিন দিনে দেশ ছেড়েছেন সাড়ে ৮ হাজার প্রবাসী

0 111


বিশেষ ফ্লাইটে তিন দিনে বিদেশে কর্মস্থলে ফিরেছেন ৮ হাজার ৫৭১ জন প্রবাসী। অপরদিকে দেশে এসেছেন ৯১৪ জন প্রবাসী।

মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) বেসরকারি বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ-বেবিচক সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। পাঁচটি দেশে ১২টি এয়ারলাইন্সের মাধ্যমে ১৭ এপ্রিল থেকে বিশেষ ফ্লাইটে প্রবাসী কর্মীদের কর্মস্থলে ফেরার অনুমতি দেয় বেবিচক।

জানা গেছে, ১৭ এপ্রিল সকাল থেকে ২০ এপ্রিল সকাল ৯টা পর্যন্ত ৮ হাজার ৫৭১ জন বিদেশে গেছেন। আর দেশে এসেছেন ৯১৪ জন। বেবিচকের নির্দেশনা অনুসারে, বাংলাদেশে থেকে বিশ্বের যে কোনও দেশে যেতে পারবেন প্রবাসীরা। লকডাউনে ১৪ থেকে ২০ এপ্রিল পর্যন্ত আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধ করায় প্রবাসী কর্মীদের কাজে ফেরায় অনিশ্চয়তা তৈরি হয়। পরবর্তীতে তাদের দাবির মুখে পাঁচটি দেশে ১২টি এয়ারলাইন্সের মাধ্যমে ১৭ এপ্রিল থেকে বিশেষ ফ্লাইটে প্রবাসী কর্মীদের কর্মস্থলে ফেরার অনুমতি দেয় বেবিচক। এই ১২টি এয়ারলাইন্সের মাধ্যমে ওই পাঁচ দেশে ট্রানজিট হয়ে বিশ্বের অন্যান্য দেশেও যেতে পারবেন প্রবাসীরা। এমন নির্দেশনা জারি করা হয়েছে।

বেবিচক জানায়, সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, সিঙ্গাপুর, কাতার ও ওমানে সরাসরি ফ্লাইট চালাতে পারবে এই ১২টি এয়ারলাইন্স। অনুমতিপ্রাপ্ত এই এয়ারলাইন্সগুলো হচ্ছে— বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স, ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্স, সৌদি অ্যারাবিয়ান এয়ারলাইন্স, ওমান এয়ার, সালাম এয়ার, কাতার এয়ারওয়েজ, এমিরেটস, ইতিহাদ, এয়ার অ্যারবিয়া, এয়ার অ্যারাবিয়া আবুধাবি, ফ্লাই দুবাই ও সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্স।

নতুন করে চীনেও ফ্লাইট চালুর অনুমতি দিয়েছে বেবিচক। ফলে ২১ এপ্রিল থেকে এই ১২ এয়ারলাইন্স ৫টি দেশে ট্রানজিট হয়ে অন্য দেশেও যাত্রী নিতে পারবে। তবে এক্ষেত্রে প্রবাসী কর্মীরা অগ্রাধিকার পাবেন। উড়োজাহাজের যাত্রী বহনের শর্ত পরিবর্তন করা হয়েছে। ছোট উড়োজাহাজের জন্য কোনও বাধ্যবাধকতা নেই। তবে বড় উড়োজাহাজে ২৮০ জন যাত্রী নেওয়া যাবে। এছাড়া বোয়িং ৭৭৭ এবং ৭৪৭ উড়োজাহাজে ৩৫০ জন করে যাত্রী নেওয়া যাবে। ২১ এপ্রিল থেকে এ নির্দেশনা কার্যকর হবে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.